logo

মঙ্গলবার ৩০শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ - ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ - ২৪শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

একই ব্যক্তিকে বারবার মনোনয়ন নয়
৯ অক্টোবর, ২০২১

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে একই ব্যক্তিকে বারবার দলীয় মনোনয়ন দিতে চায় না আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ড। বিশেষ করে যাঁরা পর পর দুইবার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন, তাঁদের জায়গায় নতুন নেতাদের সুযোগ দিতে চান বোর্ডের সদস্যরা। তবে বিএনপি-জামায়াত অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে বারবার নির্বাচিত চেয়ারম্যানদের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ না থাকলে তাঁরা আবারও মনোনয়ন পাবেন। গতকাল বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ড ও স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের যৌথ সভায় এমন নীতির ভিত্তিতে প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয় বলে সভায় উপস্থিত একাধিক নেতা কালের কণ্ঠকে জানিয়েছেন।

ক্ষমতাসীন দলটির একাধিক সূত্র জানায়, মনোনয়ন বোর্ডের যৌথ সভায় রাজশাহী বিভাগের ১১২টি এবং রংপুর বিভাগের ৮৪টি ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়েছে। এ ক্ষেত্রে দুর্নীতি ও অপকর্মের জন্য অভিযুক্তদের বেশির ভাগকেই বিবেচনায় নেওয়া হয়নি। বর্তমানে চেয়ারম্যান পদে আছেন এমন বেশ কয়েকজনকে মনোনয়ন দেওয়া হয়নি। যাঁরা বিগত নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছেন, মনোনয়ন পাননি তাঁদের কেউ। বিদ্রোহীরা যতই জনপ্রিয় হোক না কেন, তাঁদের আর মনোনয়ন দেওয়া হবে না বলে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা সাফ জানিয়ে দেন।

জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর একজন সদস্য নাম প্রকাশ না করার শর্তে কালের কণ্ঠকে বলেন, দলে আরো অনেক যোগ্য প্রার্থী আছেন, তাঁদের সুযোগ দিতে চান আওয়ামী লীগ সভাপতি।

আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের এই সদস্য কালের কণ্ঠকে বলেন, অনেক ইউনিয়নে প্রার্থী পরিবর্তন করে দেওয়া হয়েছে। তবে চাঁপাইনবাবগঞ্জের মতো বিএনপি-জামায়াত অধ্যুষিত এলাকাগুলোতে যাঁরা দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে আসছেন, তাঁদের আবারও মনোনয়ন দেওয়া হবে।

সভায় উপস্থিত ছিলেন দলটির এমন একজন কেন্দ্রীয় নেতা কালের কণ্ঠকে বলেন, বর্তমান অনেক চেয়ারম্যানই মনোনয়ন পাননি।

আওয়ামী লীগের সূত্রগুলো জানায়, সভায় প্রথমে সিরাজগঞ্জ-৬ আসনের উপনির্বাচনে প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়। আসনটিতে দলের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য মেরিনা জাহান কবিতাকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। তাঁর ভাই চয়ন ইসলামও মনোনয়ন প্রত্যাশা করেছিলেন। তাঁকে সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে মূল্যায়ন করার ইঙ্গিত দিয়েছেন দলের প্রধান শেখ হাসিনা।

সূত্রগুলো জানায়, সভায় আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন দেওয়ার ক্ষেত্রে নারীদের বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন। নারীদের আরো বেশি সংখ্যায় জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করার প্রয়োজনীয়তার কথা বলেছেন তিনি। সিরাজগঞ্জ-৬ আসনে মেরিনা জাহানকে মনোনয়ন দেওয়ার পর একটি উপজেলাসহ বেশ কয়েকটি ইউনিয়ন পরিষদে নারীদের মনোনয়ন দেওয়া হয়।

জানা গেছে, আজ শুক্রবার আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সভা আবারও বসবে। সভায় ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের ইউনিয়ন পরিষদগুলোতে মনোনয়ন চূড়ান্ত করা হবে। আগামীকাল শনিবার অনুষ্ঠেয় সভায় চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের প্রার্থী চূড়ান্ত করা হবে।

গত রাতে দলের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, মৃত্যুজনিত কারণে স্থগিত হওয়া বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জের খাউলিয়া ইউপিতে মো. সাইদুর রহমান এবং রামপাল উপজেলার রাজনগর ইউপিতে সুলতানা পারভীনকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে।

দুই উপজেলা ও ১০ পৌরসভায় মনোনয়ন পেলেন যাঁরা : বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলায় রেজাউল করিম মন্টু এবং টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলায় নার্গিস বেগম আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন। দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট পৌরসভায় ইউনুছ আলী, নীলফামারীর ডোমারে গণেশ কুমার আগরওয়ালা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভায় মোকলেছুর রহমান, বগুড়ার সোনাতলায় মো. শাহিদুল বারী খান, নড়াইলের লোহাগড়ায় সৈয়দ মসিয়ূর রহমান, নরসিংদীর ঘোড়াশালে মো. আল মুজাহিদ হোসেন, কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম আকন্দ, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় মো. গোলাম হাক্কানী, ফেনীর ছাগলনাইয়ায় মোহাম্মদ মোস্তফা এবং খাগড়াছড়ির রামগড় পৌরসভায় মো. রফিকুল আলম কামালকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে বলে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ড সূত্রে জানা গেছে

সুত্র:: কালের কন্ঠ।

আরো খবর

আজকের সংবাদের প্রচারিত কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by SaraBpo