logo

শুক্রবার ১৬ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ - ৩রা বৈশাখ, ১৪২৮ - ৩রা রমজান, ১৪৪২ হিজরি

শিরোনাম

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের মাস্ক বিতরণ,মাস্ক না পরায় ৮০ জনকে জরিমানা
১৮ নভেম্বর, ২০২০

 চট্টগ্রাম প্রতিনিধি :: করোনা দ্বিতীয় ঢেউ থেকে জনগণকে রক্ষা করতে সবার মুখে মাস্ক পরা নিশ্চিতকরনের লক্ষ্যে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনে ৮জন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান চলমান রয়েছে। আজ ১৮ নভেম্বর বুধবার সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত নগরীর নিউ মার্কেট, কোতোয়ালী, জামাল খান, জিইসি মোড় ও দামপাড়া এলাকায় ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. উমর ফারুক, রেজওয়ানা আফরিন ও নুরজাহান আক্তার সাথী। অভিযানকালে মুখে মাস্ক না পরায় মোট ৮০জনকে ১১ হাজার ৩০০ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। একই সাথে মাস্কহীনদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটগণ।

 

নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. উমর ফারুক নগরীর কোতোয়ালী এবং নিউ মার্কেট এলাকায় পরিচালিত অভিযানে নেতৃত্ব দেন। এসময় মাস্ক না পরায় ৫৩ জনকে ৯ হাজার ৩৩০ টাকা জরিমানা করেন তিনি। নগরীর জামাল খান ও জিইসি মোড় এলাকায় পরিচালিত অভিযানে নেতৃত্ব দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রেজওয়ানা আফরিন।এসময় মাস্ক না পরায় ২০ জনকে ১ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করেন তিনি। এছাড়া নগরীর দামপাড়া এলাকায় পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে নেতৃত্ব দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নুরজাহান আক্তার সাথী। এসময় মাস্ক না পরায় ৭ জনকে ৪৭০ টাকা জরিমানা করেন তিনি।

মোঃ উমর ফারুক বলেন, করোনার সম্ভাব্য সেকেন্ড ওয়েভকে সামনে রেখে মানুষকে সচেতন করার লক্ষ্যে প্রতিনিয়ত আমরা মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করছি। কিন্তু অনেকেই অবহেলা করে মাস্ক পরিধান না করে জনাকীর্ণ এলাকায় ঘোরাঘুরি করছে যা স্বাস্থ্য বিধির সম্পূর্ণ লঙ্ঘন যার ফলে নিজেকে ও অন্যদেরকে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে ফেলছে। অভিযানে দেখা যায় বিভিন্ন পেশার মানুষ দোকানদার, চাকুরিজীবী, ড্রাইভার, যাত্রী, পথচারী এমনকি শিক্ষিত ও সচেতন মানুষ মাস্ক পরিধানে অবহেলা, অবজ্ঞা করছে।
তিনি আরও বলেন, সরেজমিনে দেখা যায় অনেকেই অবহেলা করে মাস্ক পরেননা। ম্যাজিস্ট্রেট দেখলে মাস্ক পকেট থেকে দ্রুত মুখে লাগায় এমনকি কয়েকজনকে দেখা যায়, শার্ট, গামছা, হাত দিয়ে মুখ ঢাকছে বা গলিতে ও দোকানের ভিতর ঢুকে পড়ছে। তবে আগে থেকে মানুষের মাঝে সচেতনতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। দিন দিন মাস্ক পরিধানে মানুষের আগ্রহ বাড়ছে ও মাস্ক না পরলে সচেতন মহল থেকে শাস্তি আরো জোরদার করার বিষয়েও দাবী জানাচ্ছে।

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট (এডিএম) বদিউল আলম বলেন, মাস্ক পরার জন্যে প্রথম থেকেই আমরা সচেতনতা সৃষ্টির জন্যে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রচার প্রচারণা সহ মাইকিং, লিফলেট ও মাস্ক বিতরণ করে আসছি। তথাপি ইদানিং লক্ষ্য করা যাচ্ছে অনেকেই অবহেলা করে মাস্ক পরছেন না যার ফলে মোবাইল কোর্টেও মাধ্যমে তাদেরকে অর্থদন্ড দেওয়া হচ্ছে। মাস্ক পরতে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে আমাদের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কঠোর নির্দেশনা রয়েছে যাতে সবাই বাধ্যতামূলক মাস্ক পরে। মাস্ক পরতে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষে প্রতিদিন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটগণ দুই শিফটে নগরীর গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করছে। এছাড়া মাস্কবিহীনদের মাঝে আমরা মাস্ক বিতরণ করছি।

সর্বশেষ খবর

আরো খবর

আজকের সংবাদের প্রচারিত কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by SaraBpo