logo

বৃহস্পতিবার ২রা জুলাই, ২০২০ - ১৮ই আষাঢ়, ১৪২৭ - ১০ই জিলক্বদ, ১৪৪১

শিরোনাম

বোয়ালখালীতে বসতঘর ভাংচুর ও লুটপাটের মামলা, একমাসেও গ্রেফতার হয়নি আসামী
৪ জুন, ২০২০

বোয়ালখালী প্রতিবেদক :: বোয়ালখালীতে বসতঘর ভাংচুর ও লুটপাটের মামলা করে বিপাকে পড়েছেন মামলার বাদী। মামলা করার একমাস অতিবাহিত হলেও কোনো আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় বাড়ীতে থাকতে না পেরে আত্মীয় স্বজনের বাসায় দিনাতিপাত করছে বাদীর পরিবার। মামলা তুলে নিতে প্রতিনিয়ত হুমকি দিয়ে যাচ্ছে আসামীরা। ছোট শিশু সন্তানকে নিয়ে মানবেতর দিনাতিপাত করছে বাদিসহ পরিবারের সদস্যরা।

জানাযায়, গত ১৫ এপ্রিল উপজেলার পৌরসভাধীন পশ্চিম গোমদন্ডী দক্ষিণ পাড়া ফতে আলী মুন্সির বাড়িতে মোহাম্মদ নাজিমের বসত ঘরে পূর্ব শত্রæতার জেরধরে ভাংচুর ও লুটপাট চালায় আপন চাচা-চাচী ও চাচাতো ভাইবোনেরা। আসামীদের এলোপাতাড়ি হামলায় মোহাম্মদ নাজিম (২৮), স্ত্রী মনজুরা বেগম চুমকি (২২) ও ভাই সাজ্জাদ হোসেন (২৫) আহত হয়।

এঘটনায় নাজিমের স্ত্রী মনজুরা বেগম চুমকি (২২) বাদী হয়ে ১৮ এপ্রিল বোয়ালখালী থানায় একটি মামলা (নং-১০) দায়ের করেন। মামলায় মৃত আহমদুর রহমানের ছেলে আবুল কালাম (৪০), আবু তাহের (৪৮), মমতাজ আলীর স্ত্রী ছকিনা বেগম (৩২) ও ছেলে মোহাম্মদ মামুন (২২), আবু তাহেরের ছেলে আবু ফরহাদ (২৩), মোহাম্মদ মাসুদ (২০), আবুল কালামের স্ত্রী হাসিনা বেগম (৪০) ও ছেলে মোহাম্মদ আকিব (২১), আবুল কাশেমের স্ত্রী পাখি আকতর পারুল (৪০) ও ছেলে ইজবাহুল করিম (২০) সহ অজ্ঞাতনামা আরও ৪-৫ জনকে আসামি করা হয়।

মামলার বাদী মনজুরা বেগম চুমকির স্বামী মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন জানায়, আমার মা-বাবা একইদিনে মারা যায়। তারা মারা যাওয়ার পরথেকে আমার আপন চাচারা আমাদের পাকা বসত ঘরটি দখলে নিতে মরিয়া হয়ে উঠে। তারা বিভিন্ন সময় আমাদেরকে বসতঘর ছেড়ে দিয়ে চলে যেতে বলে। আমরা আমাদের পৈত্রিক বসতঘর ছেড়ে কোথাও যাবে না বললে আমাদের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে আসামীরা আমাদের বসতঘরে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে স্বদলবলে হামলা চালায়। আমাদেরকে একটি রুমে তালাবদ্ধ করে রেখে ঘরের টিনের ঘেরাবেড়া কেটে ফেলে এবং ঘরথেকে সোফাসেট, আলমিরা, ডাইনিং টেবিল ও একটি মোটর সাইকেলসহ দামী আসবাবপত্র নিয়ে যায়। পরে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কিছু আসবাবপত্র উদ্ধার করলেও অনেক আসবাবপত্র এখনো উদ্ধার করা হয়নি। মামলা দায়েরের একমাস অতিবাহিত হলেও কোনো আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় বিপাকে পড়েছি আমরা। আসামীরা মামলা তুলে নিতে প্রতিনিয়ত হুমকি দিচ্ছে।

বোয়ালখালী থানার অফিসার সেকেন্ড অফিসার ও মামলার আইও তাজউদ্দিন বলেন, উদ্ধতন কর্তৃপেক্ষর নিষেধ থাকায় বিশেষ কিছু মামলা ছাড়া এমুহুর্তে অন্য মামলার আসামী গ্রেফতার করা হচ্ছে না।

সর্বশেষ খবর

আরো খবর

আজকের সংবাদের প্রচারিত কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by GrameenFox

Optimized with PageSpeed Ninja