logo

বুধবার ৮ই জুলাই, ২০২০ - ২৪শে আষাঢ়, ১৪২৭ - ১৬ই জিলক্বদ, ১৪৪১

শিরোনাম

কুড়িগ্রামের রাজারহাটে আওয়ামীলীগের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ: টিয়ারসেল : ৪ পুলিশসহ আহত ১১
৩০ নভেম্বর, ২০১৯

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি : 
কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রি-বাষিক সম্মেলন বাতিল চেয়ে একাংশের বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধকে কেন্দ্র করে পুলিশের সাথে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া এবং টিয়ার শেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে। এতে ৪ পুলিশসহ ১১জন আহত হয়েছে। আহত ৪ পুলিশ কনস্টেবল রাজারহাট স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ব্যাপারে কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি বলে রাজারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ কৃষ্ণ কুমার সরকার নিশ্চিত করেছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে দুজন ম্যাজিস্ট্রেট এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ঘটনাস্থলে অবস্থান করছেন।
শনিবার বিকেলে উপজেলা শহরের রাজারহাট কারিগরি বাণিজ্যিক কলেজ মাঠে সম্মেলনে মোঃ শাহের আলীকে সভাপতি এবং আবু নুর মোহাম্মদ আখতারুজ্জামানকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়। এতে জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এই কমিটিকে প্রত্যাখ্যান করে শহরের সোনালী ব্যাংক চত্বরে উপজেলা চেয়ারম্যান জাহিদ সোহরাওয়ার্দী বাপ্পি এবং উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি আব্দুস সালামের সমর্থকরা প্রতিবাদ জানিয়ে সড়ক অবরোধ করে। পুলিশ বেড়িকেট উঠিয়ে দিতে চাইলে এক পর্যায়ে পুলিশের সাথে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে ৪ পুলিশসহ ১১জন আহত হয়। আহতরা হলেন, কনস্টেবল রুবেল (২৫), জাহিদ (৩২), শফিকুল (২৪)সহ আরো একজন। এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ লাঠিচার্জ ও কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। উদ্ভুদ পরিস্থিতিতে দুজন ম্যাজিস্ট্রেটসহ অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
এ ঘটনায় ৭জন কর্মী সমর্থক আহত হয় বলে রাজারহাট উপজেলা চেয়ারম্যান জাহিদ সোহরাওয়ার্দী বাপ্পি জানিয়েছেন। তিনজন রাজারহাট হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানান।
পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। আহত চার কন্সটেবলকে রাজারহাট স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

আরো খবর

আজকের সংবাদের প্রচারিত কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ নিষেধ

Developed by GrameenFox

Optimized with PageSpeed Ninja